নাসার প্রযুক্তিতে সেরে উঠছেন নেইমার

চলতি মৌসুমে দারুণ ছন্দে থেকেই কাতার বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছিলেন ব্রাজিলের প্রাণভোমরা নেইমার। কিন্তু সার্বিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেই পায়ের গোড়ালিতে আঘাত পান তিনি।

এরপর ব্যাথা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। এরপরই জানা যায়, নেইমারের পা মচকে গেছে এবং অন্তত শেষ ষোলোর আগে তার ফেরার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

ব্রাজিলিয়ান সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে ক্যামেরুনের মুখোমুখি হবে ব্রাজিল। ওই ম্যাচে নেইমারের খেলার ব্যাপারে নিশ্চয়তা পাওয়া যায়নি। কত দ্রুত চোট কাটিয়ে উঠতে পারবেন, তার ওপর নির্ভর করছে সবকিছু।

নেইমারকে নিয়ে সমর্থকদের হতাশার মাঝে আশার আলো দেখাতে পারে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার (ন্যাশনাল অ্যারোনটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন) একটি বিশেষ প্রযুক্তি, যার নাম ‘কমপ্রেশন বুট’। এই বিশেষ বুট পায়ের চোট নিরাময় ত্বরান্বিত করে। এই বুটে রয়েছে তিনটি ভিন্ন ম্যাসেজ প্রক্রিয়া যা পায়ের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে এবং মাংসপেশী এবং হাড়ের বিভিন্ন সমস্যা দ্রুত সারিয়ে তোলে।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’ জানিয়েছে, নেইমারের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হচ্ছে নাসার এই প্রযুক্তি। চিকিৎসা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ‘নর্মা টেক’ তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, নতুন প্রজন্মের ‘কমপ্রেশন বুট’ সব অ্যাথলেটদের দ্রুত চোট কাটিয়ে উঠতে সহায়তা করে। পেশাদার অ্যাথলেটদের কাছে এই প্রযুক্তি বেশ জনপ্রিয় এবং কার্যকর। ফলে এবার অন্তত ব্রাজিল সমর্থকরা আশায় বুক বাঁধতেই পারেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*