১৭ ঘণ্টার পর খোঁজ পাওয়া গেলো সেই চিতার

ভারতের ঝাড়গ্রামের ডিয়ার পার্কের খাঁচা থেকে হারিয়ে যাওয়া চিতাবাঘ হর্ষিনির খোঁজ মিলেছে। ১৭ ঘণ্টার পর পার্কের ভেতরের জঙ্গল থেকে বাঘটি উদ্ধার করা হয়। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে ঘুমপাড়ানি গুলি ছুঁড়ে বাঘটিকে ফের খাঁচাবন্দি করেন বনকর্মীরা।

বন দপ্তরের গাফিলতির জেরে বৃহস্পতিবার বিকেলে খাঁচা থেকে পালিয়ে যায় বাঘটি। তারপর রাত ৮টা পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন জায়গায় সাবধান করে মাইকিং করা হয়। এতে ওই এলাকাবাসীদের মধ্যে এক ধরনের আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়। আপাতত বাঘটির খোঁজ পাওয়ার খবরে স্বস্তি ফিরেছে ঝাড়গ্রামে।

জানা যায়, বাঘের খোঁজে গতকাল থেকে তল্লাশি শুরু করেন বন দপ্তরের আধিকারিকরা। এরপর আজ সকালে তল্লাশির গতি আরও বাড়ানো হয়। দুপুরের দিকে ডিয়ার পার্কের ভিতরের জঙ্গলে বাঘের দেখা পাওয়া যায়। প্রথমে বেশ কয়েকবার ঘুমপাড়ানি গুলি ছুঁড়ে ঘিরে বাঘটিকে কাবু করার চেষ্টা হয়। কিন্তু প্রতিবারই ঝোপের আড়ালে লুকিয়ে পড়ছিল বাঘটি। এভাবে ঘণ্টাখানেকের প্রচেষ্টায় বাঘটি খাঁচাবন্দি করেন বনকর্মীরা।

ঝাড়গ্রামের ডিএফও জে সেক ফরিদ বন দপ্তরের গাফিলতির কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, এনক্লোজারের কারেন্টের তার কাজ করছিল না। এর ফলে বাঘটি পালাতে সক্ষম হয়। এরপর থেকে সব ধরনের প্রোটোকল মানা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত চিতাটি ধরা পড়ায় স্বস্তি ফিরেছে ডিয়ার পার্ক লাগোয়া এলাকায়। এখন বাঘটির চিকিৎসা করানো হচ্ছে বলে জানা গেছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*